ভোলায় এসপির ফেসবুক হ্যাক

এসপি সরকার মোহাম্মদ কায়সার

ভোলা ২২ অক্টোবর : ভোলার পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সারের আইডি হ্যাক হয়েছে। বোরহানউদ্দিনে ফেসবুক আইডি হ্যাক করে ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়িয়ে সহিংসতার দুদিন পর এবার এসপির আইডি হ্যাক হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় পুলিশের এই কর্মকর্তা ভোলা একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন বলে জানিয়েছেন সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. এনায়েত হোসেন।

তাই এসপির আইডি হ্যাক হওয়ার বিষয়টিকে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। তা ছাড়া প্রশাসন ‘তৌহিদী জনতার’ যে ছয়টি দাবি মেনে নিয়েছে তার মধ্যে একটি হচ্ছে জেলার এসপিকে প্রত্যাহার।

এর আগে সম্প্রতি বিপ্লব চন্দ্র শুভ নামে এক যুবকের ফেসবুক একাউন্ট হ্যাক হয়ে সেখান থেকে আল্লাহ ও মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তিমূলক বার্তা মেসেঞ্জারের মাধ্যমে বিভিন্ন জনের আইডিতে পাঠানো হয়। এই বার্তার স্ক্রিনশট প্রকাশ পেলে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে বোরহান উদ্দিন উপজেলার ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা।

গেল শনিবার সকালে ‘তৌহিদী জনতার’ ব্যানারে বিপুলসংখ্যক মুসল্লি জমায়েত হয়ে বিক্ষোভ করার সময় পুলিশের সঙ্গে সংঘাতে জড়ায়। সহিংসতায় চারজন নিহত হন, আহত হন পুলিশসহ শতাধিক। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি), কোস্টগার্ড ও র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) মোতায়েন করা হয়।

এরই তিনদিনের মাথায় মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ভোলার এসপি সরকার মোহাম্মদ কায়সার তার আইডি হ্যাক হওয়ার বিষয়টি জানিয়ে জিডি করেন। ঘটনাটিকে গুরুত্বসহ দেখছে আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনী। ওসি মো. এনায়েত হোসেন বলেন, ‘আমাদের এসপি সাহেবের ব্যক্তিগত ফেইসবুক আইডি হ্যাক হয়েছে। এ ব্যাপারে আজ সকালে থানায় জিডি হয়েছে। আমরা তদন্ত করে দেখছি।’

এর আগে হতাহতের এ ঘটনার প্রতিবাদে গতকাল সোমবার বেলা ১১টায় ‘সর্বদলীয় মুসলিম ঐক্য পরিষদের’ ব্যানারে ভোলা সরকারি স্কুল মাঠে প্রতিবাদ সমাবেশের ডাক দেয়া হয়। তার আগেই আন্দোলনকারীদের জেলা ও থানা থেকে এসপি এবং ওসিদের প্রত্যাহার, ময়নাতদন্ত ছাড়াই মৃতদেহ দাফন, আহতদের সুচিকিৎসা, নিহত ব্যক্তিদের পরিবারকে আর্থিক সহযোগিতাসহ ৬ দফা দাবি মেনে নেয় প্রশাসন। প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনার পর সমাবেশ বাতিল করা হয়।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।