চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে প্রতিপক্ষকে হয়রানির অভিযোগ


চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি : চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে এক পুলিশ সদস্য নিরীহ মানুষজনকে হয়রানি করছেন বলে অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগী পরিবার। ওই পুলিশ সদস্যের হাত থেকে পরিত্রাণ পেতে রবিবার দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন জেলার গোমস্তাপুর ইউনিয়নের রাধানগর গ্রামের মো. ইসমাইল দেওয়ান।

লিখিত বক্তব্যে তিনি অভিযোগ উত্থাপন করে বলেন, দীর্ঘ কয়েক বছর যাবত রাজশাহী সিআইডিতে কর্মরত পুলিশ কনস্টেবল শেখ আনারুল ইসলামের সাথে তাদের জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ আদালতে মামলা চলমান রয়েছে। পরবর্তীতে বিবাদীর বিরুদ্ধে চাঁপাইনবাবগঞ্জের অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত, গোমস্তাপুর অঞ্চলে মামলা দায়ের করা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে শেখ আনারুল ইসলাম চাকুরিকালীন সময়ে এ বিরোধের জের ধরে কুড়িগ্রাম জেলার ভূরাঙ্গামারী থানায় ২০১৭ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর আমিসহ আমার স্ত্রীকে জড়িয়ে মামলা, বগুড়া জেলার ধুনট থানায় ২০১৮ সালের ২ ফেব্রুয়ারি এবং পরবর্তীতে ভোলা জেলার বোরহান উদ্দিন থানায় ২০১৯ সালের ৮ জানুয়ারি আরেকটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেন।
এছাড়া সাক্ষী শেখ বাবুল আখতারকে তিনি মোবাইল ফোনের মাধ্যমে হুমকি প্রদান করেন। এমনকি একই গ্রামের শেখ ফরিদকে শিবগঞ্জ থানায় ২০১৬ সালের ১ নভেম্বর মামলায় জড়ানো হয়। এভাবে মিথ্যা মামলা দিয়ে উপকমিশনার সিআইডি রাজশাহীর অধীনস্ত পুলিশ সদস্য শেখ আনারুল ইসলাম বিবাদী মো. ইসমাইল দেওয়ান, তার স্ত্রী মোসা. মনোয়ারা বেগমসহ মামলার সাক্ষীদের একাধিক মামলা দিয়ে হয়রানি অব্যাহত রেখেছেন। তার অত্যাচারে গ্রামের সহজ সরল মানুষ নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। এ বিষয়ে ভুক্তভোগীসহ সংশ্লিষ্ট মহলের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এ ব্যাপারে পুলিশ সদস্য শেখ আনারুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, এ ধরনের ঘটনার সাথে তার কোন সংশ্লিষ্টতা নেই।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।