যেমন হতে পারে টাইগারদের টেস্ট স্কোয়াড

যেমন হতে পারে টাইগারদের টেস্ট স্কোয়াডক্রীড়া ডেস্ক : ওয়ানডে সিরিজ শেষ। প্রত্যাশিত ফলই হয়েছে। তারকা, প্রতিষ্ঠিত ও নামী পারফরমারহীন আনকোরা ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল পাত্তাই পায়নি টাইগারদের কাছে। ঢাকায় যথাক্রমে ৬ ও ৭ উইকেটে জেতা তামিম বাহিনী সোমবার চট্টগ্রামে তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে ১২০ রানের বিশাল জয়ে হোয়াইটওয়াশ মিশন পূর্ণ করেছে।

টাইগারদের একচেটিয়া প্রাধান্যে ওয়ানডে সিরিজ শেষ হওয়ার মুহূর্ত থেকে দিনক্ষণ গণনা শুরু হয়েছে টেস্ট সিরিজের। আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি থেকে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুরু হবে প্রথম টেস্ট। তার আগে ২৯ জানুয়ারি বন্দরনগরীর এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে শুরু একমাত্র তিনদিনের ম্যাচ। আগেই জানা, উইকেটরক্ষ ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহানের নেতৃত্বে ক্যারিবীয় টেস্ট দলের বিপক্ষে তিনদিনে ম্যাচ খেলবেন যুব বিশ্বকাপজয়ী দলের ৬ ক্রিকেটারসহ এক ঝাঁক তরুণ। ক্রিকেট ভক্ত ও সমর্থকদের কৌতুহলী প্রশ্ন-কবে ঘোষণা টেস্ট স্কোয়াড? সেই দলের সংখ্যা কত হবে? ব্যাটসম্যান ক’জন, পেসার আর স্পিনারই বা থাকবেন ক’জন করে? ভেতরের খবর, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওই তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ শেষেই ঘোষণা হবে টেস্ট স্কোয়াড। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু এ তথ্য জানিয়েছেন। নান্নু বলেন, ‘আমরা তিনদিনের প্রস্তুতি ম্যাচ শেষে ৩১ জানুয়ারি টেস্ট স্কোয়াড ঘোষণা করব।’

প্রধান নির্বাচকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ওয়ানডে স্কোয়াড যে কারণে স্বাভাবিকের চেয়ে বড় (১৮ জনের) হয়েছিল, টেস্ট দলের বহরও বড় হবে। সেটা সংখ্যায় ১৭ জনের কম হবে না, ১৮‘ও হতে পারে। করোনাকালীন সময়ে জৈব সুরক্ষা বলয়ের বাইরে থেকে ক্রিকেটার দলে ঢোকানো যাবে না, এই চিন্তায় ওয়ানডে মূল দলের মত টেস্ট স্কোয়াডও সংখ্যায় ১৭-১৮ জনের হবে। দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের জন্য গত ৪ জানুয়ারি ২০ জনের প্রাথমিক দল ঘোষণা করা হয়েছে। তাদের সবাই জৈব সুরক্ষা বলয়ে এখন চট্টগ্রামের রেডিসন ব্লু হোটেলে অবস্থান করছেন। প্রধান নির্বাচকের কথা, সেই দল থেকে বড়জোর দুই থেকে তিনজন বাদ যাবেন। বাকিরা থেকে যাবেন মূল টেস্ট স্কোয়াডে।

মিনহাজুল আবেদিন নান্নু কারও নাম সরাসরি উল্লেখ না করলেও আকার ইঙ্গিতে জানিয়ে দিয়েছেন, প্রাথমিক দল থেকে উইকেটরক্ষক নুরুল হাসান সোহান আর পেসার খালেদ আহমেদের বাদ পড়ার সম্ভাবনা খুব বেশি। বাকি ১৮ জনই থাকবেন, নাকি আরও একজনকে ছেঁটে ফেলা হবে, তা নিশ্চিত করে বলেননি প্রধান নির্বাচক। নান্নু আরও জানান, দলে ৫ জনের বেশি পেসার নেওয়া হবে না। সেই পেস বোলারের বহরে থাকতে পারেন নতুন মুখ হাসান মাহমুদ। ওয়ানডের মত লক্ষীপুরের এ ২১ বছর বয়সী ফাস্টবোলারের টেস্টেও অভিষেক হতে পারে। যতদূর জানা গেছে, টেস্ট দলে তিনিই হতে পারেন একমাত্র নতুন মুখ। আর যদি ১৮ জনের দল হয়, তাহলে ইয়াসির আলী চৌধুরী রাব্বির থাকার সম্ভাবনাও খুব বেশি।

টেস্টের সম্ভাব্য স্কোয়াড
মুমিনুল হক (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সাদমান ইসলাম, সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহীম, সাকিব আল হাসান, লিটন দাস, মোহাম্মদ মিঠুন, মেহেদি হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, নাঈম হাসান, মোস্তাফিজুর রহমান, আবু জায়েদ রাহি, তাসকিন আহমেদ, ইবাদত হোসেন, হাসান মাহমুদ, ইয়াসির রাব্বি (১৮ জনের দল হলে)।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।