রাজশাহীতে মেস মালিকের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের মারধরের অভিযোগ, শহরছাড়া করার হুমকি

রাজশাহীতে মেস মালিকের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের মারধরের অভিযোগ, শহরছাড়া করার হুমকিনিজস্ব প্রতিনিধি : রাজশাহী নগরীর হেতম খাঁ গোরস্থান এলাকার আহসান মঞ্জিল ছাত্রাবাসের মালিক ও তার ছেলের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় এডমিশন পরীক্ষার্থী ও ইন্টারমিডিয়েট পড়ুয়া ছাত্রদের মারধর ও ‘লাথি মেরে’ শহর থেকে বের করে দেয়ার হুমকির অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ভুক্তভোগী ছাত্ররা সাংবাদিকদের কাছে এমন অভিযোগ করেছেন।

অভিযুক্ত ওই মেস মালিকের নাম মো. কালু। তার ছেলের নাম রিয়াদ হোসেন। তিনি বোয়ালিয়া থানা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও রাজশাহী সরকারি সিটি কলেজের ছাত্র। আহসান মঞ্জিল ছাত্রাবাসের শিক্ষার্থীরা জানান, সম্প্রতি নগরীর হেতম খাঁ এলাকার ছাত্রাবাসে তারা ওঠেন। তবে সেখানে অনেক সমস্যায় পড়তে হয় তাদের। মেস মালিক মো. কালু ও তার ছেলে রিয়াদ হোসেন মাঝেমধ্যেই তাদেরকে গালিগালাজ ও হুমকি ধামকি দিতেন। সময়মতো মেস ভাড়া ও বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করা হলেও পুনরায় ভাড়া নেয়ার জন্য জোরজবরদস্তি করতেন মেস মালিক।

ছাত্রদের অভিযোগ, সবশেষ মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) ভোরে মেস মালিক মো. কালু ছাত্রাবাসে এসেই কয়েকজন শিক্ষার্থীর গলা চেপে ধরে মারতে শুরু করেন এবং তাদের মানিব্যাগে থাকা টাকাপয়সা ছিনিয়ে নেন। একপর্যায়ে গালিগালাজ করে রাজশাহী শহরছাড়া করা ও কলেজে ক্লাস করতে না দেয়ার হুমকি দিয়ে চলে যান তিনি। এরপর তারা আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে মালোপাড়া পুলিশ ফাঁড়িতে অভিযোগ দেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মেস মালিক মো. কালু তার বিরুদ্ধে আনিত সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, মেসের ছাত্ররাই আমার সাথে দুর্ব্যবহার করেছে। তবে তার ছেলে সাবেক ছাত্রদল নেতা মো. রিয়াদ বলেন, এটা আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়। এ ব্যাপারে মালোপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইফতেখার আলম জানান, অভিযোগ পেয়ে ছাত্রাবাসে পুলিশ পাঠানো হয়। পুলিশ গিয়ে বিষয়টি মীমাংসা করে দিয়েছে।

 

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।