নাম না থাকায় ব্যানারে আগুন !


অনুষ্ঠানের ব্যানারে নিজের নাম না থাকায় ক্ষুব্ধ হয়ে ব্যানারেই আগুন দিলেন খোদ উপজেলা চেয়ারম্যান ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী। সোমবার সকালে নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এ ঘটনা ঘটে।
উপজেলা ইসলামীক ফাউন্ডেশন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, পূর্ব নির্ধারিত সময় সূচি মোতাবেক সোমবার সকাল ১০ টায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্তৃক উপজেলার প্রশিক্ষণ যোগ্য সকল ইমামদের নিয়ে সম্মেলন ও কর্মশালার আয়োজন করা হয়। ওই অনুষ্ঠানে ইউএনও আনোয়ার পারভেজের সভাপতিত্বে এবং স্থানীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকার কথা। তাই তৈরীকৃত ব্যানারে প্রধান অতিথি ও সভাপতির নাম ব্যবহার করা হয়েছে। সে ব্যানারে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারীর নাম ব্যবহার করা হয়নি।
এরপর অনুষ্ঠান শুরুর ঠিক আগ মূহুর্তে পরিষদ মিলনায়তনে উপস্থিত হন ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী। তিনি বোর্ডে ঝোলানো ব্যানারে নিজের নাম দেখতে না পেয়ে খিপ্ত হয়ে উঠেন। এক পর্যায়ে নিজ হাতে টেনে ছিড়ে ব্যানারে আগুন লাগিয়ে দেন চেয়ারম্যান। এসময় ইমমরা মিলনায়তন ছেড়ে বাহিরে বেরিয়ে আসেন।
এ বিষয়ে ইসলামিক ফাউন্ডেশন বড়াইগ্রাম শাখার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ফিল্ড সুপারভাইজার) মহিদুল ইসলাম বলেন, অনুষ্ঠান সংক্রান্ত কিছু কাগজপত্র নিতে মিলনায়তন থেকে অফিস এসেছিলাম আমি। ফিরে গিয়ে দেখি বোর্ডে ব্যানার নাই। মেঝেতে ব্যানার পোড়ানো ছাই পড়ে আছে। তিনি বলেন, এরচেয়ে বেশী কিছু বলা আমার পক্ষে সম্ভব নয়।
ইউএনও আনোয়ার পারভেজ বলেন, আমি উপজেলা পরিষদের বাহিরে ছিলাম। দুপুর ১টার দিকে অফিসে ফিরে শুনেছি মাত্র। ইমামদের সম্মেলন হয়েছে কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমার জানা নাই, খোজ নিয়ে জানতে হবে।
এ বিষয়ে জানতে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারীর সাথে তার মোবাইল ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ করা হলে, অন্য একজন ফোনটি রিভিক করে বলেন, স্যার মিটিং এ আছেন।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।