বাসাইলে শিক্ষকের বিরুদ্ধে কোচিং বাণিজ্যের অভিযোগ!

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

টাঙ্গাইলের বাসাইল গোবিন্দ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক সুশীল কুমার মোদকের বিরুদ্ধে কোচিং বাণিজ্যের অভিযোগ উঠেছে।

জানা যায়, বাসাইল পল্লী বিদ্যুৎ অফিস সংলগ্ন নিজ বাসভবনে ৬ষ্ঠ শ্রেনির শিক্ষার্থীদের নানা বিষয়ে পাঠদান দান করেন তিনি। তার স্ত্রীও শিক্ষার্থীদের পাঠদান করে থাকেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অধিকাংশ শিক্ষার্থীর অভিভাবকের অভিযোগ, সহকারি শিক্ষক সুশীল কুমার মোদক অত্র বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ভর্তি করে দেয়ার চুক্তিতে নিয়মিত পাঠদান করেন। এজন্য বাড়তি টাকা গ্রহণ করারও অভিযোগ রয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে গেলে শিক্ষকের নিজ বাসভবনে শিক্ষার্থীদের পাঠদান অবস্থায় পাওয়া গেছে। বিষয়টি ওই শিক্ষক প্রতিবেদককে ম্যানেজ করার চেষ্টাও করেন।

একটি সূত্র জানায়, দীর্ঘ ১৬ বছর যাবৎ তিনি এই প্রতিষ্ঠানেই বহাল তবিয়তেই রয়েছেন। তবে উক্ত শিক্ষকের সাম্প্রতিক বদলীর কথা থাকলেও দপ্তরকে ম্যানেজ করে বহাল তবিয়তেই রয়েছেন বলেই অত্র বিদ্যালয়ের বিশ্বস্ত সূত্রের মন্তব্য। তবে চুক্তিতে প্রাইভেট পড়ানোর বিষয়টা শিক্ষক সুশীল কুমার মোদক অস্বীকার করেন।

স্থানীয়দের অভিযোগ, আমরা ঐ রকম শিক্ষক চাইনা যে চুক্তিতে পাঠদান করে থাকেন। প্রকৃত মেধাবীদের স্থানে চুক্তিতে যাদের ৬ষ্ঠ কিংবা ৭ম শ্রেণিতে ভর্তি করানো হচ্ছে তা সহনীয় নয়। এ ব্যাপারে সচেতন অভিভাবক মহল তদন্তপূর্বক সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।